ঢাকা   সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১   রাত ১০:১৯ 

সর্বশেষ সংবাদ

টিকা কেন্দ্র বসছে সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতি ভবনে,সম্ভাব্যতা দেখে এসেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সব সদস্যকে দ্রুত করোনার টিকা দেয়ার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের একটি টিম বুধবার এ জন্য সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতি ভবন পরিদর্শন করে সমিতির নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের একজন পরিচালকের নেতৃত্বে আইনজীবী সমিতি ভবন পরিদর্শন করে টিকাদান কেন্দ্র খোলার বিষয়টি দেখে এসেছেন। আইনজীবী সমিতির সম্পাদক ব্যারিষ্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল, জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা এসে সমিতি ভবনে টিকাদান কেন্দ্র খোলার বিষয়ে সম্ভাব্যতা যাচাই করে গেছেন। তিনি জানান, সমিতির পক্ষ থেকে দাবি জানানো হয়েছে, আইনজীবী সমিতি ভবনে অন্তত ১৫ দিনের জন্য যেনো টিকাদান কেন্দ্র খোলা হয়। যাতে বারের প্রত্যেক সদস্য টিকা নিতে পারেন। তিনি জানান সুপ্রিমকোর্ট বারে প্রায় ৮ হাজার সদস্য রয়েছেন। যারা ব্যক্তিগত উদ্যোগে টিকা নিয়েছেন তারা ছাড়া যারা এখনো নিতে পারেন নি তারা সবাই যেনো টিকা নিতে পারেন তা নিশ্চিত করা হবে।
এদিকে ১৬ জুলাই প্রধান বিচারপতির নির্দেশনায় সুপ্রিমকোর্টের রেজিষ্ট্রার জেনারেলের জারি করা বিজ্ঞপ্তিতে ৩১ জুলাইর মধ্যে দেশের সব আদালতের কর্মকর্তা-কর্মচারীকে করোনা ভাইরাসের টিকা নিতে বলা হয়েছে। একই সঙ্গি টিকা কার্ডসহ টিকা গ্রহণ সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য ১২ আগস্টের মধ্যে রেজিষ্ট্রারের কার্যালয়ে পাঠানোর কথা বলা হয়েছে।
নির্দেশনায় আরো বলা হয়, ‘প্রত্যেক জেলার জেলা ও দায়রা জজ/মহানগর এলাকার মহানগর দায়রা জজ, চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট/চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট অধীনস্থ বিচারক এবং কর্মকর্তা/কর্মচারিদের এবং অন্যান্য ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট বিচারক তার এবং তার অধীনস্থ কর্মকর্তা/কর্মচারিদের কোভিড-১৯ এর টিকাদান কার্ড-এর কপি সংগ্রহপূর্বক ভ্যাকসিন গ্রহণসংক্রান্ত তথ্যাবলী সংযুক্ত ছক অনুযায়ী আগামী ১২ আগস্টের মধ্যে সফটকপি scinfocovid19@gmail.com-এ এবং হার্ডকপি অত্র কোর্টের রেজিস্ট্রার, হাইকোর্ট বিভাগ-এর নিকট প্রেরণ করবেন। তবে বেধে দেয়া সময়ের মধ্যে অর্থাৎ ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে সবাই টিকা নিতে পারেন নি বলে জানা গেছে। কারণ নিবন্ধন করে প্রথম ডোজ টিকা নেয়ার ১২ সপ্তাহ পর দ্বিতীয় ডোজ টিকা নেয়ার বিধান রয়েছে। ফলে এক মাসের মধ্যে দুইডোজ টিকা নেয়ার সুযোগ নেই।
একই অবস্থা অ্যাটর্নি জেনারেল অফিসেও । এ অফিসের ১৮০ জন কর্মকর্তা কর্মচারীর মধ্যে সবাই এখনো টিকা নেননি্ । গত সোমবার অ্যাটর্নি জেনারেল অফিস থেকে এক নোটিশ জারি করে বলা হয়েছে ৩১ আগষ্টের মধ্যে প্রত্যেক কর্মকর্তা কর্মচারী টিকা না নিলে তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে। এমন কি বেতন বন্ধ করে দেয়ার কথাও বলা হয়েছে। তবে একমাসের মধ্যে দুই ডোজ টিকা কিভাবে নেবেন সে বিষয়ে কিছু বলা হয় নি।
আইনজীবীরা বলছেন, সমিতি ভবনে এক বা একাধিক টিকা কেন্দ্র স্থাপন করে প্রত্যেক আইনজীবীকে টিকা প্রদান নিশ্চিত করে আদালত পুরোপুরি খুলে দেয়া হোক। এ ছাড়া শুধু আইনজীবীই নন তাদের সহকারীদেরও টিকা প্রদান নিশ্চিত করতে হবে।

1 COMMENT

  1. Establishment of vaccine booths in the Supreme Court premises was long due. I came to know a number of such booths in the Secretariat premises are at work for quite sometime. My sincere thanks to Bar authority for the move taken in the interest of the lawyers. This is bit too late, but quite befits the Bar and righteousness of the claim.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সবচেয়ে আলোচিত