ঢাকা   সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১   দুপুর ২:৫৯ 

সর্বশেষ সংবাদ

সোনিয়া-শোয়েবের বিচ্ছেদ কি হয়েই গেল?

সোনিয়া মির্জা ও শোয়েব মালিকের বিচ্ছেদ নিয়ে জল্পনা চলছে বছর খানেক ধরেই। তবে এবার চর্চা তুঙ্গে উঠল পাকিস্তানের প্রাক্তন ক্রিকেট অধিনায়ক নিজেই বিরাট ইঙ্গিত দেয়ায়। শোয়েব নিজের ইনস্টাগ্রাম বায়োতে পরিবর্তন এনেছেন। যা নেটিজনদের নজর এড়ায়নি। সোনিয়া বা শোয়েব কেউই নিজেদের সম্পর্ক নিয়ে মুখ খোলেননি। তবে শোয়েবের বায়োতে বিচ্ছেদেরই ইঙ্গিত স্পষ্ট।
সোনিয়া ও শোয়েবের বিয়ে হয়েছিল ২০১০ সালে। ২০১৮ সালে তাঁদের সন্তান ইজহানের জন্ম। শোয়েব মালিকের সঙ্গে অভিনেত্রী আয়েশা ওমরের ছবি ভাইরাল হয়েছিল। সুইমিং পুলে শোয়েবের বক্ষলগ্না অবস্থায় আয়েশাকে দেখা যায়। সোনিয়া ও শোয়েব এই বিষয়ে মুখ খোলেননি। তবে আয়েশা দাবি করেন, এটি পুরোনো ছবি। রোমান্টিক ফোটোশ্যুট মাত্র, তার বেশি কিছু নয়। আয়েশার সঙ্গে শোয়েবের নয়া সম্পর্ক নিয়ে জল্পনা চলাকালীনই সোনিয়া ও শোয়েবকে দেখা গিয়েছিল পাকিস্তানের টিভি রিয়ালিটি শো, যার নাম ছিল দ্য মির্জা মালিক শো। এই অনুষ্ঠানে পাকিস্তানের সেলিব্রিটিদের সাক্ষাৎকার নেন সোনিয়া ও শোয়েব। নিজেদের সম্পর্ক নিয়ে জল্পনার কোনও প্রভাব পড়তে দেননি সোনিয়া-শোয়েব, চূড়ান্ত পেশাদারিত্বের পরিচয় দিয়েই। এরই মধ্যে ৪১ বছরের পাকিস্তানি অলরাউন্ডার শোয়েব মালিক ইনস্টাগ্রাম বায়োতে পরিবর্তন এনেছেন। আগে সেখানে লেখা ছিল “Husband to a superwoman Sania Mirza”, অর্থাৎ সোনিয়ার স্বামী হিসেবে নিজের পরিচয় দিয়েছিলেন। এই অংশটি মুছে দিয়েছেন শোয়েব। এখন শুধু ইজহানের পিতৃপরিচয় দিয়ে “Father to One True Blessing” লেখা রয়েছে। এর জেরেই সোনিয়া-শোয়েবের তালাক নিয়ে জল্পনা জোরদার হয়েছে। সোনিয়া আগেই নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে শোয়েবের ছবি ও ভিডিওগুলি ডিলিট করে দিয়েছিলেন। তবে শোয়েবের অ্যাকাউন্টে এখনও সোনিয়ার ছবি রয়েছে। ৩৬ বছরের সোনিয়া গত মার্চে হায়দরাবাদে প্রদর্শনী ম্যাচ খেলে টেনিসকে গুডবাই জানিয়েছেন।
সোনিয়ার পরিবারের এক ঘনিষ্ঠ সংবাদসংস্থা পিটিআইকে জানিয়েছেন, যেহেতু বিষয়টি তাঁদের একান্তই ব্যক্তিগত সে কারণে সোনিয়া ও শোয়েব একসঙ্গে বা আলাদা করে নিজেদের সম্পর্কের কথা জনসমক্ষে আনতে চাইছেন না। ছেলে ইজহানের কথা ভেবেই। ফলে সকলের উচিত তাঁদের এই সিদ্ধান্তকে সম্মান জানিয়ে ব্যক্তিগত পরিসরে প্রবেশ না করা। যদিও তাতে জল্পনা থামার কোনও ইঙ্গিতই নেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সবচেয়ে আলোচিত