ঢাকা   সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১   রাত ১০:৪৪ 

সর্বশেষ সংবাদ

পেগাসাসের জন্যই লাখ লাখ মানুষ নিশ্চিন্তে ঘুমোতে পারে, উদ্ভট দাবি ইসরাইলের প্রস্তুতকারী সংস্থার

বিশ্বজুড়ে বিতর্কের জেরে ধাক্কা খাচ্ছে ভাবমূর্তি। দাবি উঠছে পেগাসাসের মতো সফটওয়্যার বা ম্যালওয়্যার যারা বানায়, সেই ধরনের সংস্থার বিরুদ্ধে তদন্ত হওয়া উচিত। সব মিলিয়ে রীতিমতো বিতর্কে পেগাসাস এর প্রস্তুতকারী সংস্থা ইসরাইলের এনএসও গ্রুপ। আর এই বিতর্কের মুখে এবার আজব সাফাই গাইল তাঁরা। এনএসও গ্রুপের দাবি, বিশ্বজুড়ে লক্ষ লক্ষ মানুষ নিশ্চিন্তে ঘুমোতে পারেন শুধু পেগাসাসের -এর মতো প্রযুক্তির জন্যই। আমরা পৃথিবীকে নিরাপদ করে তোলার জন্য সাধ্যমতো কাজ করছি।
শনিবার এক বিবৃতিতে ইসরায়েলের এই তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাটি দাবি করেছে,”বিশ্বজুড়ে লক্ষ লক্ষ মানুষ নিশ্চিন্তে ঘুমোতে পারছেন, নিরাপদে চলাফেরা করতে পারছেন শুধু পেগাসাসের এবং এই ধরনের অন্য সফটওয়্যারের জন্যই। বিভিন্ন অ্যাপের এন্ড টু এন্ড এনক্রিপশনের আড়ালে বিশ্বব্যাপী যে অপরাধ এবং সন্ত্রাসের জাল ছড়িয়েছে, তা সম্পর্কে তদন্ত করতে এবং সন্ত্রাস রুখতে আমরাই বিভিন্ন নিরাপত্তা এজেন্সিকে সাহায্য করছি।” এসএসও গ্রুপের যুক্তি, “আমরা এবং অন্য বেশ কয়েকটি সাইবার ইন্টেলিজেন্স কোম্পানি বিভিন্ন দেশের সরকারকে এই ধরনের প্রযুক্তি ব্যবহার করতে দিই কারণ, সামাজিক মাধ্যম বা ইনস্ট্যান্ট মেসেজিং অ্যাপের আড়ালে যে অপরাধের জাল ছড়িয়ে পড়ছে তা নিয়ন্ত্রণ করার কোনও উপায় কারও কাছে নেই। আমরা আমাদের সাধ্যমতো চেষ্টা করছি, এই পৃথিবীকে আরও নিরাপদ করে তোলার।” পেগাসাসকে ঘিরে যে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে, তা নিয়ে সংস্থার সাফ যুক্তি, আমরা নিজেরা এই সফটওয়্যার ব্যবহারও করি না। এটার বিস্তারিত তথ্যও আমাদের হাতে নেই।
উল্লেখ্য পেগাসাস হচ্ছে ইসরায়েলের সংস্থা ‘এনএসও গ্রুপ’-এর তৈরি একটি সফটওয়্যার। এর মাধ্যমে ফোনে আড়ি পাতা যায় বা ফোন হ্যাক করা যায়। ফলে যে স্মার্টফোনটিকে নিশানা করা হয়েছে সেটির ভয়েস কল ও হোয়াটসঅ্যাপ ডেটা-সহ সমস্ত তথ্য হামলাকারীর হাতে চলে যায়। এই কাজটি এতটাই গোপনে হয় যে ফোনটির ব্যবহারকারী আক্রান্ত হওয়ার কথা জানতেই পারেন না। ফলে তাঁর অজান্তেই গোপন কথাবার্তা, তথ্য সমস্ত কিছু ফাঁস হয়ে যায়। বিশেষ করে, রাজনীতিবিদ, শিল্পপতি, সাংবাদিক ও কুটনীতিবিদের এই স্পাইওয়্যারের মাধ্যমে নিশানা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ। পেগাসাস রিপোর্ট নিয়েই এই মুহূর্তে গোটা বিশ্বই উত্তাল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সবচেয়ে আলোচিত