ঢাকা   বুধবার, ৮ ডিসেম্বর ২০২১, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮   সকাল ৭:১৩ 

সর্বশেষ সংবাদ

প্রভাবশালীদের সুরক্ষা দিতেই প্রকৃত অপরাধীদের চিহ্নিত করে শাস্তি নিশ্চিত করা হয় না: টিআইবি

সাম্প্রতিক সাম্প্রদায়িক সহিংসতা বিচ্ছিন্ন কোনো ঘটনা নয়। রাজনৈতিক দোষারোপের ঘেরাটোপেই এসব ঘটনা আটকে থাকে। এসব ঘটনার বিচার না হওয়ায় এ ধরনের সহিংসতা ঘটছে। সহিংসতায় জড়িত ব্যক্তিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)।
টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ইফতেখারুজ্জামান মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, দুর্গাপূজায় কুমিল্লার ঘটনাকে কেন্দ্র করে দেশের একাধিক স্থানে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর সাম্প্রদায়িক হামলা বন্ধে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ মাঠ প্রশাসন ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। ঘটনা ঘটে যাওয়ার পর শতাধিক মামলায় কয়েক হাজার আসামি করা হয়েছে। কিন্তু চিরাচরিত রাজনৈতিক দোষারোপের বাইরে এখন পর্যন্ত প্রকৃত অপরাধীদের চিহ্নিত করা সম্ভব হয়নি।
ইফতেখারুজ্জামান বলেন, গত এক দশকে তিন হাজারের বেশি সাম্প্রদায়িক হামলার কোনো ঘটনাতেই দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির তথ্য পাওয়া যায়নি। সাম্প্রদায়িক শক্তির প্রতি রাজনৈতিক পৃষ্ঠপোষকতা এবং বিচারহীনতার সংস্কৃতি হামলাকারীদের উসকে দিচ্ছে। অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে না পারলে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাংলাদেশ অসম্ভবই থেকে যাবে।
কুমিল্লার ঘটনার পরে ১৫ অক্টোবর শুক্রবার বিজয়া দশমীর দিনে ১২ ঘণ্টার বেশি সময় মোবাইল ইন্টারনেট সেবা বন্ধ রাখা এবং মূলধারার গণমাধ্যমে সংবাদ প্রচার না করার সমালোচনা করেন টিআইবির নির্বাহী পরিচালক। তিনি বলেন, প্রকৃত ঘটনা আড়াল করে নয়, তাৎক্ষণিকভাবে প্রকৃত অপরাধীকে আইনের আওতায় আনলে পরিস্থিতি এত দূর গড়াত না।
ইফতেখারুজ্জামান বলেন, অতীতে রামু, উখিয়া, নাসিরনগর, সুনামগঞ্জসহ বিভিন্ন স্থানে সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনায় ক্ষমতাসীনসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা–কর্মীদের সম্পৃক্ততার তথ্য পাওয়া গেছে। প্রতিটি সহিংসতার পেছনেই কোনো না কোনো স্বার্থান্বেষী ও প্রভাবশালী মহলের যোগসাজশ আছে। কিন্তু পর্দার পেছনের কুশীলবরা অদৃশ্য আঙুলের ইশারায় সব সময়ই ধরাছোঁয়ার বাইরে থেকে যাচ্ছে। প্রভাবশালীদের সুরক্ষা দিতেই প্রকৃত অপরাধীদের চিহ্নিত করে শাস্তি নিশ্চিত করা হয় না।
বিভিন্ন সময়ের সাম্প্রদায়িক হামলার তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ না করার সমালোচনা করে টিআইবির নির্বাহী পরিচালক বলেন, প্রতিবেদন প্রকাশ না করার চর্চা বাদ দিয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করে সাম্প্রদায়িক সহিংসতা বন্ধ করতে হবে। ভবিষ্যতে যেন আর এমন ঘটনা না ঘটে, সে জন্য সুনির্দিষ্ট ও বাস্তবায়নযোগ্য কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নের দাবি জানায় টিআইবি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

13 + 9 =

সবচেয়ে আলোচিত