ঢাকা   শুক্রবার, ৭ অক্টোবর ২০২২, ২২ আশ্বিন ১৪২৯   রাত ২:২০ 

সর্বশেষ সংবাদ

ইসি গঠনে আইন চেয়ে করা রিট সরাসরি খারিজ করলো হাইকোর্ট

সংবিধানের বিধি অনুযায়ী আইন করার মাধ্যমে পরবর্তী নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনের নির্দেশনা যে রিট আবেদনটি হয়েছিল, তা খারিজ করে দিয়েছে হাই কোর্ট।
বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো. কামরুল হোসেন মোল্লার ভার্চুয়াল হাই কোর্ট বেঞ্চ রোববার প্রাথমিক শুনানি নিয়ে তা খারিজ করে দেয়।
সংবিধানের ১১৮ (১) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী সুনির্দিষ্ট আইন প্রণয়নের মাধ্যমে পরবর্তী নির্বাচন কমিশন গঠনের নির্দেশনা চেয়ে গত ১৩ অক্টোবর রিটটি করেছিলেন বাংলাদেশ কংগ্রেসের মহাসচিব ও সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. ইয়ারুল ইসলাম।

পরে ২৪ অক্টোবর অবেদনটি শুনানির জন্য উঠলে আদালত রোববার শুনানির জন্য রাখে। আইনজীবী মো. ইয়ারুল ইসলাম নিজেই রিটের পক্ষে শুনানি করেন। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন, সঙ্গে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল নওরোজ মো. রাসেল চৌধুরী।

আইনজীবী ইয়ারুল ইসলাম বলেন, “আইন প্রণয়ন করতে হাই কোর্ট সংসদকে নির্দেশ দিতে পারেন না- এ যুক্তিতে রিটটি খারিজ করা হয়েছে। তবে এ খারিজ আদেশের বিরুদ্ধে আপিলে যাব।”
সংবিধানের ১১৮ (১) অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, প্রধান নির্বাচন কমিশনার এবং অনধিক চার জন নির্বাচন কমিশনারকে লইয়া বাংলাদেশের একটি নির্বাচন কমিশন থাকিবে এবং উক্ত বিষয়ে প্রণীত কোন আইনের বিধানাবলী-সাপেক্ষে রাষ্ট্রপতি প্রধান নির্বাচন কমিশনারকে ও অন্যান্য নির্বাচন কমিশনারকে নিয়োগদান করিবেন।
কে এম নূরুল হুদার নেতৃত্বাধীন বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ আগামী বছরের ১৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। তার আগেই নতুন কমিশন গঠনে আলোচনা শুরু হয়েছে।
জাতীয় পার্টি ও বামদলগুলো চাচ্ছে নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনে সংবিধানের ভিত্তিতে একটি পূর্ণাঙ্গ আইনি কাঠামো হোক।
২০১৭ সালের ১১ জানুয়ারি ইসি গঠনে আইন প্রণয়নের নির্দেশনা চেয়ে একটি রিট করেছিলেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ। তখন ওই রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে আদালত রুল দিয়েছিল।  সে রুলটি বিচিারাধীন বলে জানান আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ। বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

three × four =

সবচেয়ে আলোচিত