ঢাকা   বৃহস্পতিবার, ৬ অক্টোবর ২০২২, ২১ আশ্বিন ১৪২৯   সকাল ৭:৫১ 

সর্বশেষ সংবাদ

রাজধানী ছেঁয়ে গেছে মাদকে; করোনা আর লকডাউনেও বাঁধা মানছে না, প্রতিদিন উদ্ধার হচ্ছে বস্তা বস্তা গাঁজা, ইয়াবা

করোনা, লকডাউন কোনো কিছুতেই ঠেকানো যাচ্ছে না মাদকপাচারকারিদের। খোদ রাজধানীতেই বস্তায় বস্তায় গাঁজা আর লাখ লাখ পিস ইয়াবা ঢুকছে প্রতিদিন। পুলিশ কিছু উদ্ধার করছে কিন্তু বেশীরভাগই থেকে যাচ্ছে ধরাছোঁয়ার বাইরে। মাত্র এক সপ্তাহে রাজধানীতেই উদ্ধার হয়েছে অন্তত ৫শ কেজি গাঁজা আর এক লাখ পিস ইয়াবা। উদ্ধার হয়েছে ফেনসিডিল,হেরোইনসহ নানা ধরণের মাদক। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা ইউনিট বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে এসব মাদক উদ্ধার করছে। তবে বেশিরভাগই ধরতে পারে না পুলিশ। রাজধানীর কয়েকটি স্পটে প্রকাশ্যেই বিক্রি হয় ইয়াবা,গাঁজা,ফেনসিডিল।করোনার মহামারীর কারণে দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। সারাদেশের সঙ্গে রাজধানীর যান চলাচল বন্ধ। কিন্তু তাতেও ঠেকছে না মাদক আসা। এতো পথ ডিঙ্গিয়ে রাজধানীতে এসব মাদক কিভাবে ঢুকছে তা নিয়ে দেখা দিয়েছে নানা প্রশ্ন। সীমান্তরক্ষীর চোখ এড়িয়ে, বিভিন্ন থানা পুলিশ, জেলা পুলিশ, গোয়েন্দাদের চোখ ফাঁকি দিয়ে রাজধানীতে এসব মাদক কি ভাবে পৌঁছে তাও রহস্যজনক। শুধু পৌঁছাই নয়,রাজধানীর অলিগলিতে তা বিলিবন্টন হয় বিক্রির জন্য। রয়েছে নির্ধারিত বাজার। যেখানে কখনো প্রকাশ্যে কখনো গোপনে বিক্রি হচ্ছে এসব মাদক। তবে মাদকের বিরুদ্ধে পুলিশের এই অভিযান চললেও মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর নামক সংস্থাটির উল্লেখযোগ্য ভূমিকা চোখে পড়ছে না। জীবন ধংসকারি ইয়াবা, হেরোইন,গাঁজা,ফেনসিডিল উদ্ধারে তাদের তৎপরতা নেই বললেই চলে। “আইন আদালত”এর পাঠকদের জন্য শুধু ঢাকা মহানগর পুলিশের অনলাউন নিউজ পোর্টাল ‘ডিএমপি নিউজ’এ গত এক সপ্তাহের ইয়াবা আর গাঁজা উদ্ধারের খবরগুলো জানাচ্ছি ,যা পড়লেই বোঝা যাবে মাদক দ্রব্যের সার্বিক চিত্র।
**সাড়ে ১৯ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার:
ডিএমপি নিউজ সূত্র জানিয়েছে, রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে মাদকদ্রব্য বিক্রি ও সেবনের দায়ে ৩৯ জনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) বিভিন্ন থানা ও গোয়েন্দা বিভাগ।এ সময় ১৯,৪৪৭ পিস ইয়াবা, ৩২ গ্রাম ৬০ হেরোইন ও ২ কেজি ৬শ৫ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করা হয়। পুলিশ জানিয়েছে মঙ্গলবার (৪ মে) রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে পুলিশ এসব মাদকদ্রব্য উদ্ধার করে।

**১৪ কেজি গাঁজা উদ্ধার:
রাজধানীর হাতিরঝিল থানা এলাকায় ৩ মে সোমবার রাতে অভিযান চালিয়ে ১৪ কেজি গাঁজাসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে ডিএমপির গোয়েন্দা ওয়ারী বিভাগ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- বায়েজিদ হোসেন শুভ (২৬) ও মোঃ মিজানুর হোসেন (৩০)। এসময় তাদের হেফাজত হতে গাঁজা বহনে ব্যবহৃত একটি প্রাইভেটকার জব্দ করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা কুমিল্লা জেলার সীমান্তবর্তী এলাকা হতে গাঁজা সংগ্রহ করে ঢাকা মহানগরসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় বিক্রি করতো বলে জানিয়েছে পুলিশ।
**১২ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার:
রাজধানীর আদাবর থানা এলাকা থেকে ১২ হাজার পিস ইয়াবাসহ ৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে ,ডিএমপি, গোয়েন্দা উত্তরা বিভাগ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো-নুরুল ইসলাম ওরফে রিগান (৩৩), জামাল হোসেন (৩৬), জাবের হোসেন নিলয় (১৮) আলী হোসেন তন্ময় (২১) ও রাজীব সূত্রধর (২৫)। আদাবর থানার শেখেরটেক প্রবাল হাউজিং রিং রোড এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। ৩ মে পুলিশ এসব ইয়াবা উদ্ধার করে।

**৪৪ কেজি গাঁজা উদ্ধার:
পুলিশ জানিয়েছে রবিবার (২ মে) হাতিরঝিল থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৪৪ কেজি গাঁজাসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করে গোয়েন্দা পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো মোঃ আলমগীর (৪৩) ও মোঃ সোহেল (২৯)। হাতিরঝিল থানার শিশু পার্কের সামনে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়। গোয়েন্দা পুলিশের একটি টিম হাতিরঝিল থানার শিশু পার্কের সামনে দুটি পাটের বস্তা ও একটি প্লাষ্টিকের বাজারের ব্যাগ তল্লাশী করে ৪৪ কেজি গাঁজাসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারকৃতরা স্বীকার করেছে, সীমান্তবর্তী কুমিল্লা জেলা থেকে গাঁজা সংগ্রহ করে তারা ঢাকা ও আশাপাশের বিভিন্ন এলাকায় বিক্রি করতো।
**১০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার:
পুলিশ জানিয়েছে ২ মে রবিবার তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানা এলাকা থেকে ইয়াবাসহ সেলিম উদ্দিন (১৯) ও সৈয়দ আলম (২৬) নামের দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় তাদের হেফাজত থেকে ১০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার বিজি প্রেস উচ্চ বিদ্যালয় এলাকায় অভিযান চালিয়ে ইয়াবাসহ তাদেরকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

**সাড়ে ৯ হাজার পিস ইয়াবা,পিকআপভ্যানসহ ২ জন গ্রেপ্তার:
রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানা এলাকায় গত বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) অভিযান চালিয়ে মাদকদ্রব্য ইয়াবা ও পিকআপ ভ্যানসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা মিরপুর বিভাগ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো সফিকুল ইসলাম ওরফে মনা (৩৫) ও মোঃ আলমগীর মিয়া (২৮)। এসময় তাদের হেফাজত থেকে ৯৫০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট এবং ইয়াবা পরিবহনে ব্যবহৃত একটি পিকআপ ভ্যান উদ্ধার করা হয়।
**১০ কেজি গাঁজা উদ্ধার:
পুলিশ জানিয়েছে ২৯ এপ্রিল বৃহস্পতিবার রাজধানীর উত্তরা পূর্ব থানা এলাকা হতে ১০ কেজি গাঁজাসহ দু’জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করে ডিএমপির গোয়েন্দা ওয়ারী বিভাগ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- মোঃ সাগর (২২) ও মোঃ মনিরুল ইসলাম মানিক (২৫)। উত্তরা পূর্ব থানার ৬ নং সেক্টর এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।
**৮ কেজি গাঁজা উদ্ধার:
রাজধানীর মিরপুর মডেল থানা এলাকা হতে ২৯ এপ্রিল বৃহস্পতিবার ৮ কেজি গাঁজাসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করে ডিএমপির গোয়েন্দা উত্তর বিভাগ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- মোঃ হোসেন আলী (৫২), আমেনা বেগম (৪০) ও মোঃ ফুল মিয়া (৫৫)। এসময় তাদের হেফাজত হতে ৮ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। পুলিশ জানায় মিরপুর মডেল থানার উত্তর পীরের বাগ, ৬০ ফিট এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা কুমিল্লা জেলার সীমান্তবর্তী এলাকা হতে গাঁজা সংগ্রহ করে ঢাকা মহানগরসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় বিক্রি করে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

**৫শ পিস ইয়াবা উদ্ধার:
রাজধানীর তুরাগ থানা এলাকা থেকে ২৮ এপ্রিল বুধবার ৫শ পিস ইয়াবাসহ একজনকে গ্রেপ্তার করেছে তুরাগ থানা পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতের নাম-মোহাম্মদ তাকবির হোসাইন(২৬)। এসময় তার হেফাজত হতে ৫০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।
**৫০ কেজি গাঁজা উদ্ধার:
রাজধানীর বংশাল থানা এলাকা থেকে গত ২৮ এপ্রিল বুধবার ৫০ কেজি গাঁজাসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে ডিএমপির গোয়েন্দা লালবাগ বিভাগ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো বাপ্পি (৩৮) ও মনির হোসেন (৪২)। এ সময় তাদের হেফাজত হতে গাঁজা পরিবহনে ব্যবহৃত একটি প্রাইভেটকারও জব্দ করা হয় । পুলিশ জানায় বংশাল থানার ফুলবাড়িয়া বিআরটিসি বাস স্ট্যান্ডের সামনে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।
**১২২ কেজি গাঁজা, ইয়াবা উদ্ধার:
পুলিশ জানিয়েছে ২৮ এপ্রিল রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে মাদকদ্রব্য বিক্রি ও সেবনের দায়ে ২৬ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তাদের হেফাজত থেকে ১২৮৯ পিস ইয়াবা, ৩০ গ্রাম হেরোইন, ১২২ কেজি ২৮০ গ্রাম গাঁজা ও ৪৫ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ২১ টি মামলা রুজু হয়েছে।

**৭০ কেজি গাঁজা উদ্ধার:
রাজধানীর রমনা থানা এলাকায় ২৭ এপ্রিল অভিযান চালিয়ে ৭০ কেজি গাঁজাসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো কাশেম (৩০) ও মনির হোসেন (২৫)। মালিবাগ রেলগেট সংলগ্ন রহমান হোমিও হলের সামনে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেপ্তার করে। অভিযানে নেতৃত্ব দেওয়া সহকারী পুলিশ কমিশনার জাবেদ ইকবাল জানান, মাদক ব্যবসায়ীরা হবিগঞ্জ থেকে পিকআপে করে গাঁজা নিয়ে আসছে এমন খবর পেয়ে ডিবির একটি টিম মালিবাগ রেলগেট এলাকায় অবস্থানকালে দেখতে পায় রহমান হোমিও হলের সামনে দুইজন ব্যক্তি পিকআপ থেকে ৩ টি চটের বস্তা নামাচ্ছে। বিষয়টা সন্দেহ হলে ডিবি পুলিশ পিকআপের দিকে এগিয়ে যায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পিকআপ চালক ৩ টি চটের বস্তা রেখে দ্রুত পিকআপ চালিয়ে রামপুরার দিকে পালিয়ে যায়। এসময় বস্তা তল্লাশী করে ৭০ কেজি গাঁজাসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তারা জানায়, সীমান্তবর্তী হবিগঞ্জ জেলা থেকে গাঁজা সংগ্রহ করে পিকআপে করে ঢাকায় এনে তারা ঢাকা ও আশাপাশের বিভিন্ন এলাকায় বিক্রি করতো।
**২০০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার:
রাজধানীর মতিঝিল এলাকায় ২৭ এপ্রিল অভিযান চালিয়ে ২০০০ পিস ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করে ডিএমপির গোয়েন্দা পুলিশের ওয়ারী বিভাগ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- তোফায়েল আহম্মদ (৬০) ও মোঃ আপন মিয়া (২৮)।
**৩০০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার:
রাজধানীর যাত্রাবাড়ি এলাকা থেকে গত ২৭ এপ্রিল ৩০০০ পিস ইয়াবাসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করে ডিএমপির গুলশান জোনের গোয়েন্দা ইউনিট। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- রুবেল খন্দকার (২১) ও মোঃ জিয়া (২২)। গ্রেপ্তারকৃতরা দেশের সীমান্তবর্তী কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে ইয়াবা সংগ্রহ করে ঢাকা মহানগর এলাকায় বিক্রি করতো বলে পুলিশ জানিয়েছে।
** ৫ হাজার ৮শ পিস ইয়াবা,হেরোইন উদ্ধার:
রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৫৮১৪ পিস ইয়াবা, ২৫০ গ্রাম হেরোইন, ৪ লিটার দেশী মদ ও ৮৬০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করে গোয়েন্দা পুলিশ। গত ২৭ এপ্রিল এ অভিযান চালানো হয়। ।এ সময় ৩০ জনকে গ্রেপ্তার করে এবং ১৯ টি মামলা রুজু হয়েছে।
** ৬ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার:
রাজধানীর গুলিস্তান এলাকায় ২৬ এপ্রিল অভিযান চালিয়ে ৬ হাজার পিস ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা রমনা বিভাগ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো তকি ওসমান (২১) ও প্রভাষ মন্ডল (৩৪)। পুলিশ জানায় বঙ্গবন্ধু এভিনিউ, হকি স্টেডিয়ামের সামনে থেকে ইয়াবা ট্যাবলেটসহ তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়।
**৪ কেজি গাঁজা উদ্ধার:
ডিএমপি’র কদমতলী থানা পুলিশ ৩০ এপ্রিল অভিযান চালিয়ে ৪ কেজি গাঁজাসহ ২ জনকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- মোঃ আবুল কাশেম ও মোঃ সোহেল মিয়া। কদমতলী থানার ওসি জামাল উদ্দীন মীর জানান, সন্ধ্যায় কদমতলী থানার শনির আখড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে আবুল কাশেমকে গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় তার হেফাজত হতে ৩ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। একই দিন বিকেলে অপর এক অভিযানে কদমতলী থানার মাতুয়াইল শিশু মাতৃ স্বাস্থ্য ইউনিষ্টিটিউট এর সামনে থেকে এক কেজি গাঁজাসহ মোঃ সোহেল মিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়।
**৫০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার:
পুলিশ জানায় কদমতলী থানা এলাকায় ৫০০ পিস ইয়াবাসহ একজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ৩০ এপ্রিল এক অভিযান চালিয়ে এগুলো উদ্ধার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তির নাম মিজান সরকার (৩০)।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

seventeen − five =

সবচেয়ে আলোচিত