ঢাকা   শুক্রবার, ১ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪৩০   সকাল ১০:১৯ 

সর্বশেষ সংবাদ

কারও ব্যাংক হিসাব জব্দ ও সম্পত্তি ক্রোকের ক্ষমতা দুদকের নেই: হাইকোর্ট

আদালতের অনুমতি ছাড়া কারও ব্যাংক হিসাব জব্দ কিংবা সম্পত্তি ক্রোকের ক্ষমতা দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) নেই বলে রায় দিয়েছেন হাইকোর্ট। বুধবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের ইতিপূর্বে দেয়া রায় স্বাক্ষরের পর প্রকাশ করা হয়েছে।

হাইকোর্ট রায়ে বলেছেন, কোনো ব্যক্তির সম্পত্তি ক্রোক বা ব্যাংক হিসাব ফ্রিজ করতে চাইলে দুদকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাকে সিনিয়র স্পেশাল জজ বা বিচারিক আদালতে আবেদন করতে হবে। পর্যাপ্ত তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে আদালত সন্তুষ্ট হয়ে আদেশ দিলে তখন ব্যাংক হিসাব ফ্রিজ বা সম্পত্তি ক্রোক করার সুযোগ রয়েছে। এমনকি সেই সম্পত্তি যদি অপরাধলব্ধও হয়ে থাকে।
উচ্চ আদালত রায়ে আরও বলেছেন, দুদকের কোনো তদন্ত কর্মকর্তা কারও ব্যাংক হিসাব ফ্রিজের নির্দেশ দিতে পারেন না। কমিশনের অনুমোদন সাপেক্ষে আদালতের আদেশে ব্যাংক হিসাব ফ্রিজ করার সুযোগ রয়েছে। দুদকের আইন ও বিধিতে কোনো অনুসন্ধান বা তদন্ত কর্মকর্তা এমনকি অন্য কোনো কর্মকর্তাকে এ ধরনের অপরাধলব্ধ সম্পত্তি ক্রোকের ক্ষমতা দেয়া হয়নি।
কক্সবাজারে বেলায়েত হোসেন নামের এক ব্যক্তির ব্যাংক হিসাব ফ্রিজের নির্দেশ দিয়ে সংশ্লিষ্ট ব্যাংকে চিঠি পাঠায় দুদক। সেই চিঠির বৈধতা নিয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়। হাইকোর্ট তার রায়ে সেই চিঠির কার্যক্রম অবৈধ ঘোষণা করেছেন।
২০০৭ সালের দুর্নীতি দমন কমিশন বিধিমালার ১৮ বিধি তুলে ধরে রায়ে বলা হয়, সন্দেহভাজন ব্যক্তির বেআইনি পন্থায় অর্জিত ব্যাংক হিসাব অবরুদ্ধকরণ বা সম্পত্তি অ্যাটাচমেন্ট করার প্রক্রিয়া সম্পর্কে বিধিতে পরিষ্কারভাবে বলা হয়েছে। ২০০৭ সালে বিধিতে ‘অপরাধলব্ধ সম্পত্তি’ জব্দ বা ক্রোক বা অন্য কোনো বিধিনিষেধ আরোপ করার ক্ষমতা অনুসন্ধান বা তদন্তকারী কোনো কর্মকর্তা বা দুদকের অন্য কোনো কর্মকর্তাকে দেয়া হয়নি।
দুদকের চট্টগ্রাম-২ সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপসহকারী পরিচালক মো. শরীফ উদ্দিন চলতি বছরের ৬ জানুয়ারি সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের কক্সবাজার শাখার ব্যবস্থাপককে বেলায়েত হোসেন নামের এক ব্যক্তির ব্যাংক হিসাব জব্দের নির্দেশ দিয়েছিলেন। ফার্মেসি ব্যবসায়ী বেলায়েত কক্সবাজারের বাসিন্দা।
ব্যাংক হিসাব জব্দের ওই নির্দেশের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে বেলায়েত হাইকোর্টে রিট করেন। এর প্রাথমিক শুনানি নিয়ে গত ২২ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্ট রুলসহ অন্তর্বর্তীকালীন আদেশ দেন। রুলে বেলায়েতের ব্যাংক হিসাব জব্দ করতে দুদকের ওই উপসহকারী পরিচালকের দেয়া ৬ জানুয়ারির নির্দেশ কেন আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চাওয়া হয়। রুলের চূড়ান্ত শুনানি শেষে ২৭ জুন হাইকোর্ট রায় ঘোষণা করেন।

রায়ে হাইকোর্ট বলেছেন, এই মামলায় দুদকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ব্যাংক হিসাব জব্দে যে চিঠি দিয়েছেন- তা শুধু উদ্দেশ্যপ্রণোদিত, এখতিয়ারবহির্ভূত ও বেআইনিই নয়, ক্ষমতার অপব্যবহারও বটে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সবচেয়ে আলোচিত