ঢাকা   শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১   রাত ৮:০৯ 

সর্বশেষ সংবাদ

রোববার থেকে হাই কোর্টে ১২টি ভার্চুয়াল বেঞ্চ, নিম্ন আদালতে শারীরিক ও ভার্চুয়ালি দুভাবেই বিচারকাজ চলবে

কঠোর লকডাউনের মধ্যেও বিচার কাজ আরও সচল রাখতে হাইকোর্টে ভার্চুয়াল কোর্টের সংখ্যা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। আগামি রোববার থেকে ১২ টি ভার্চুয়াল কোর্টে বিচারকাজ চলবে। এর মধ্যে ৯ টি থাকবে দ্বৈত বেঞ্চ আর ৩ টি থাকবে একক বেঞ্চ। চলমান লকডাউনে এতোদিন হাইকোর্টে মাত্র ৩ টি বেঞ্চে বিচারকাজ চলে আসছে, যা বাড়ানোর জন্য দাবি জানাচ্ছিলেন আইনজীবীরা।
গত বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টের উভয় বিভাগের বিচারকদের নিয়ে ফুল কোর্ট সভা করে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন এই সিদ্ধান্ত দিয়েছেন। রোববার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত বেলা সাড়ে ১০টা থেকে সোয়া ৪টা পর্যন্ত এসব বেঞ্চে বিচার কাজ চলবে। এ ছাড়া রোববার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত অধস্তন আদালতেও সাক্ষ্যগ্রহণ ছাড়া সব ধরণের বিচার কাজ চালানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে।
প্রধান বিচারপতির এ নির্দেশনা সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়। সেখানে বলা হয়, “দেশব্যাপী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধকল্পে শারীরিক উপস্থিতি ছাড়া আগামী রোববার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বৃহস্পতিবার বিকেল সোয়া ৪টা পর্যন্ত ভার্চুয়াল উপস্থিতির মাধ্যমে হাই কোর্ট বিভাগের বিচারকাজ পরিচালনার জন্য বেঞ্চ গঠন করা হল।”
দ্বৈত বেঞ্চগুলো মধ্যে রয়েছে- বিচারপতি মুহাম্মদ আবদুল হাফিজ ও বিচারপতি মোহাম্মদ আলীর (ফৌজদারি) সমন্বিত বেঞ্চ, বিচারপতি মো. রইস উদ্দিন ও বিচারপতি মো. সোহরাওয়ার্দির (ফৌজদারী) বেঞ্চ, বিচারপতি মো. রেজাউল হক ও বিচারপতি মো. বদরুজ্জামানের (ফৌজদারি) বেঞ্চ, বিচারপতি ফারাহ মাহবুব ও বিচারপতি এস এম মনিরুজ্জামানের (রিট) বেঞ্চ, বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের (রিট ও ফৌজদারি-দুদক) বেঞ্চ, বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি আহমেদ সোহেলের (দেওয়ানি) বেঞ্চ, বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের (রিট) বেঞ্চ এবং বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলাম ও বিচারপতি কে এম জাহিদ সারওয়ারের (ফৌজদারি) বেঞ্চ। 
একক বেঞ্চ চালাবেন বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকার (কোম্পানি ও অ্যাডমিরালিটি সংক্রান্ত), বিচারপতি মাহমুদুল হক (দেওয়ানি) ও বিচরপতি মো. সেলিম (ফৌজদারি)।

অধস্তন আদালতে দুভাবে চলবে বিচারকাজঃ

ফুলকোর্ট সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. আলী আকবর এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন, আগামী রোববার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত অধস্তন আদালতে সাক্ষ্য গ্রহণ ছাড়া সব বিচারিক কাজ চালানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে।
এর মধ্যে কিছু বিচারকাজ চলবে স্বাস্থ্যবিধি বজায় রেখে শারীরিক উপস্থিতির মাধ্যমে। আর কিছু বিচারকাজ চালানো হবে তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে।
৮ থেকে ১২ অগাস্ট শারীরিক উপস্থিতি ছাড়া ভার্চুয়াল উপস্থিতির মাধ্যমে সব ধরনের দেওয়ানি ও ফৌজদারি দরখাস্ত/আপিল/বিবিধ মামলাসহ সব ধরনের শুনানি গ্রহণ (সাক্ষ্য ব্যতীত) ও নিষ্পত্তি হবে।
আর স্বাস্থ্যবিধি মেনে সামাজিক ও শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে শারীরিক উপস্থিতিতে অধস্তন দেওয়ানি আদালতে সাকসেশন ও অভিভাবকত্ব নির্ধারণ বিষয়ক মামলা দায়ের, শুনানি ও নিষ্পত্তি করা যাবে।
স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে শারীরিক উপস্থিতিতে ফৌজদারি আদালত ও ট্রাইব্যুনালগুলোতে নালিশি মামলা দায়ের করা যাবে।
ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত ব্যক্তি অধস্তন ফৌজদারি আদালত এবং ট্রাইব্যুনালগুলোতে শারীরিক উপস্থিতিতে আত্মসমর্পণের আবেদন দাখিল করতে পারবেন। এক্ষেত্রে শুনানি কার্যক্রমের পদ্ধতি ও সময়সূচি এমনভাবে নির্ধারণ ও সমন্বয় করতে হবে, যাতে আদালত প্রাঙ্গণে ও আদালত ভবনে কোনো জনসমাগম না ঘটে।
আত্মসমর্পণের আবেদন শুনানির সময় আত্মসমর্পণকারী ব্যক্তি এবং তার আইনজীবী ছাড়া অন্য কোনো আইনজীবী এজলাস কক্ষে অবস্থান করবেন না। একটি আবেদনের শুনানি শেষে সংশ্লিষ্ট আইনজীবী এজলাস কক্ষ ত্যাগ করার পর বিচারক/ম্যাজিস্ট্রেট পরবর্তী দরখাস্ত শুনানির জন্য গ্রহণ করবেন।
তবে অধস্ত আদালত, ট্রাইব্যুনালে জামিন শুনানির সময় বা আমলি আদালতের হাজিরার জন্য হাজতি আসামিদের কারাগার থেকে আদালতে হাজির না করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
আর রিমান্ড শুনানির ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট ম্যাজিস্ট্রেটকে কারা কর্তৃপক্ষের সহযোগিতায় ভার্চুয়ালি শুনানি করতে বলা হয়েছে। 
এছাড়া প্রত্যেক চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট/চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট এক বা একাধিক ম্যাজিস্ট্রেটকে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে শারীরিক উপস্থিতিতে দায়িত্ব পালন করে যেতে বলা হয়েছে এ বিজ্ঞপ্তিতে।
সংশ্লিষ্ট একটি সূত্রে জানা গেছে ১৬ আগস্ট থেকে হাইকোর্ট বিভাগের সবগুলো বেঞ্চেই ভার্চুয়ালি বিচারকাজ চালানো হতে পারে। সে সময় ৩৮ টি কোর্ট খোলা রাখার কথা ভাবা হচ্ছে। আর আদালতের স্টাফ ও আইনজীবীদের টিকা গ্রহণ সম্পন্ন হলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শারীরিক উপস্থিতিতেও দেশের সব আদালতে বিচারকাজ চালু করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সবচেয়ে আলোচিত